জীবন যাত্রার মান উন্নয়নে যোগাযোগ ব্যবস্থা অপরিহার্য(সড়ক পথ)

মোঃ রুবেল, মুন্সীগঞ্জ:মুন্সীগঞ্জ বাসীর জীবন যাত্রার মান উন্নয়নে যোগাযোগ ব্যবস্থা অপরিহার্য বলে মনে করেন সচেতন নাগরিকগণ। মুন্সীগঞ্জ জেলাটি রাজধানীর পাশের জেলা হলেও অভ্যন্তরীন যোগাযোগ ব্যবস্থা তেমন ভালো নয়। সড়ক পথের বিষয়টি লক্ষ করলে দেখা যায়, মুন্সীগঞ্জ জেলা শহরে আন্ত: বাস সার্ভিস চালু নেই। মুন্সীগঞ্জের ৬টি উপজেলা থেকে ঢাকার সাথে বাস যোগাযোগের ব্যবস্থা থাকলেও আন্ত: বাস সার্ভিস চালু নেই। ফলে মানুষকে যাতায়াতের জন্য অটো, সিএনজি, মিশুক ও লেগুনার উপর নির্ভর করতে হয়। সাধারণ জনগণকেও অতিরিক্ত ভাড়ার ব্যয় বহণ করতে হয়।
কথা হলো লৌহজং উপজেলা থেকে মুন্সীগঞ্জ শহরে আসা মোতালেব হোসেনের সাথে। তিনি জানালেন, মুন্সীগঞ্জ শহরে আমার বছরে দু একটি কাজের জন্য আসতে হয়। এক পাসপোর্টের জন্য। অন্য কোট কাচারীতে কোন মামলা মোকদ্দমার জন্য। তিনি আরো জানালেন, লৌহজং থেকে সিএনজির মাধ্যমে মুন্সীগঞ্জ শহরে আসতে হয়েছে। অতিরিক্ত ভাড়া দিতে হয়েছে। কিন্তু এই রাস্তায় যদি আন্ত: বাস সার্ভিস চালু থাকতো তাহলে ভাড়া বাবদ অতিরিক্ত খরচ হতো না।
সিরাজদিখান থেকে মুন্সীগঞ্জ শহরে আসা দেলোয়ার হোসেন জানান, আন্ত:জেলা বাস সার্ভিস অত্যান্ত জরুরী। কারণ, বাস সার্ভিস চালু হলে যাতায়াত সহজ হবে। অতিরিক্ত ভাড়া গুনতে হবে না। রাস্তায় মিশুক ও অটো গাড়ির উপর নির্ভরতা কমে যাবে। যানজট হ্রাস পাবে।
গজারিয়া উপজেলা থেকে আসা মোঃ আব্দুল মবিন বলেন, মুন্সীগঞ্জ শহরে আন্ত:বাস সার্ভিস চালু করা এখন সময়ের দাবী মাত্র। পূর্বে গজারিয়া উপজেলা থেকে শহরে প্রবেশ করতে হলে ট্রলারে পার হয়ে কিংবা নারায়নগঞ্জ শহর ঘুরে ঢুকতে হতো। কিন্তু বর্তমানে গজারিয়া ঘাটে ফেরি চালু হওয়ায় অতোটা কষ্ট করতে হবে না। আন্ত: জেলা বাস সার্ভিস চালু হলে ফেরিঘাটটিও জমজমাট হবে এবং মানুষের যাতায়াতেরও সুবিধা হবে।
শ্রীনগর থেকে মুন্সীগঞ্জ শহরে আসা দীপংকর বলেন, মুন্সীগঞ্জ শহরে সিএনজিতে করে আসা যাওয়ার জন্য আমাদের প্রায় ৫’শ টাকার উপরে খরচ হয়। শ্রীনগর থেকে যদি মুন্সীগঞ্জ শহর পর্যন্ত বাস সার্ভিস চালু থাকতো তাহলে আমাদের এতো খরচ হতো না।
মুন্সীগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ রুবেল বলেন, মুন্সীগঞ্জে আন্ত:জেলা বাস সার্ভিস চালু করা অত্যান্ত জরুরী। এ সার্ভিসটি চালু হলে সকল শ্রেণি পেশার লোকজনই সুবিধা ভোগ করবে। বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা বেশি উপকৃত হবে। তাছাড়া জেলায় অন্যান্য যানবাহনের চাপ কমে যাবে এবং যানজট হ্রাস পাবে। মানুষের সময় বেচে যাবে এবং কাজের গতি বৃদ্ধি পাবে এবং মানুষের জীবন যাত্রার মানও বৃদ্ধি পাবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকেও ভূমিকা রাখতে হবে।
উজ্জীবিত একুশ মুক্ত রোভার স্কাউট গ্রæপ এর সিনিয়র রোভার মেট মিনহাজুল ইসলাম জানান মুন্সীগঞ্জ শহর থেকে উপজেলায় কোন বাস সার্ভিস নেই। সেই সাথে সদর থেকে ঢাকায় যাওয়ার জন্য একটি মাত্র বাস সার্ভিস রয়েছে যা যাত্রীদের জন্য অনিরাপদ ও কষ্টদায়ক যাত্রা। অনান্য উপজেলা থেকে আগত যাত্রীরা সিএনজি তে আসতে হয় এবং মুন্সীগঞ্জের সিএনজি সার্ভিসও একটি সিন্ডিকেটের হাতে জিম্মি। তাই মুন্সীগঞ্জে আন্ত: জেলা বাস সার্ভিস প্রয়োজন।
মুন্সীগঞ্জ নাগরিক সমš^য় পরিষদের সদস্য সচিব আব্দুস সাত্তার মুন্সী বলেন, মুন্সীগঞ্জ জেলায় আন্ত: বাস সার্ভিস চালু করা অত্যান্ত জরুরী। বিশেষ করে শিক্ষার্থীদের উপকারের জন্য এ বাস সার্ভিসটি জরুরী। অন্যদিকে ভাড়া যেমন কমবে তেমনি যোগাযোগ ব্যবস্থায়ও গতিশীলতা আসবে বলে আমি মনে করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *