দক্ষিণ কোরিয়ায় উৎসবে পদদলিত হয়ে ১৪৯ জন নিহত

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউল শহরে হ্যালোইন উৎসব উদযাপনের জন্য সমবেত হওয়া বিপুল জনতার ভিড়ে চাপা পড়ে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অন্তত ১৪৯ জন নিহত এবং আরো ১৫০ জন আহত হয়েছে। নিহতদের বেশির ভাগই নারী ও বিশের কোঠায় থাকা তরুণ।

একজন ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ৭৪টি লাশ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে, অন্য আরো ৪৬টি লাশ শনাক্ত করার জন্য নিকটবর্তী একটি শরীরচর্চা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

কিছুক্ষণ আগে পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা প্রতি ঘণ্টায় লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছিল। গত এক ঘণ্টাতেই মৃতের সংখ্যা ৫৯ থেকে বেড়ে ১২০-এ উঠে যায়।

সিউল শহরের একটি জনপ্রিয় নৈশ বিনোদন এলাকা ইতেওনে হ্যালোইন উদযাপনের জন্য প্রায় এক লাখ লোক সমবেত হয়েছিল বলে খবরে বলা হয়।

কোভিড মহামারীর পর দেশটিতে এবারই প্রথমবারের মতো উন্মুক্ত স্থানে হ্যালোইন উদযাপন হচ্ছে।

এক খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে একজন ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ওই এলাকার একটি পাহাড়ের ওপরদিকে থাকা লোকেরা নিচে পড়ে গেলে একটি সরু গলিতে থাকা বিপুল সংখ্যক মানুষের মধ্যে হুড়োহুড়ির সৃষ্টি হয়।

তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, ঠিক কী কারণে এই ঘটনা ঘটলো তা তারা এখনো জানার চেষ্টা করছে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী বিবিসিকে বলেছেন, ওই এলাকায় হাজার হাজার লোকের ভিড় জমে গিয়েছিল এবং ভিড়ে চাপা পড়া থেকে বাঁচতে তারা বড় রাস্তায় বেরিয়ে এসেছিলেন।

ঘটনাস্থলে এখন বহু উদ্ধারকর্মী, অ্যাম্বুলেন্স এবং চিকিৎসাকর্মী কাজ করছে।

সূত্র : বিবিসি, আলজাজিরা

নয়া দিগন্ত অনলাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *