দোকান টিকে ১০,০০০/- জরিমানা করা হয়

কাজী: ৩১/১০/২০২২ তারিখে দুপুর ১২ঃ০০ টায় টংগিবাড়ি উপজেলায় টংগিবাড়ি বাজার এলাকায় জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মুন্সীগঞ্জ জেলা কার্যালয় কর্তৃক অভিযান কার্যক্রম করা হয়। চিনির পাইকারি ও খুচরা দোকানসমূহে মনিটরিং করা হয়। বারেক স্টোরে মনিটরিং কালে দেখা যায় যে, এক কেজির চিনির প্যাকেটের এম আর পি ৯৫/- কিন্তু ১১০/- কেজি দামে এক কেজির চিনির প্যাকেট বিক্রি করা হচ্ছে, জর্দার রং নামে ননফুডগ্রেড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রং বিক্রি করা হচ্ছে। দোকান টিকে ৫০০০/- জরিমানা করা হয়। শহীদ স্টোরে মনিটরিং কালে দেখা যায় যে, এক কেজি চিনির প্যাকেটের এম আর পি ৯৫/- কিন্তু ১১০/- করে এক কেজি চিনির প্যাকেট বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়া দোকানটি থেকে বিপুল পরিমাণ খালি চিনির প্যাকেট উদ্ধার করা হয় যেগুলো প্যাকেট কেটে বেশি দামে বিক্রি করা হয়েছে। দোকান টিকে ১০,০০০/- জরিমানা করা হয়। অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী পরিচালক জনাব আসিফ আল আজাদ। টংগিবাড়ি থানা পুলিশের একটি টিম ও উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর জনাব মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম অভিযানে সহযোগিতা করেন।
এম আর পি দামে চিনির প্যাকেট বিক্রি না করে, প্যাকেট কেটে চিনি বিক্রি করলে লাভ বেশি তাই এক কেজির প্যাকেট কেটে খোলা হিসেবে চিনি বিক্রি করছে কিছু অসাধু ব্যাবসায়ী! ভোক্তাদের কে বলেন প্যাকেটের চিনি শেষ!! টংগিবাড়ি বাজারে বিষয়টি আজকের অভিযানে ধরা পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *