বালিগাঁও-ডহরী খালে নদী ভাঙ্গনের মুখে মসজিদ ও ঘরবাড়ি

স্টাফ:- মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি উপজেলার গৌরগঞ্জ খাল তথা- বালিগাঁও-ডহরী খালে বর্ষ্যা মৌসুমে নদীর ভাঙ্গনে অনেক মসজিদ- ঘরবাড়ি বিলিন হলেও খড়ালী মৌসুমেও নদীর পার ভাঙ্গনের মুখে মসজিদ-ঘরবাড়ি।

বালিগাঁও ইউনিয়নের গোয়ারা গ্রাম ও পার্শবর্তী বেশ কয়েকটি গ্রামের জনসাধারনের পক্ষ থেকে ‘গোয়ারা অনাবিল সামাজ কল্যাণ সংঘ’র সদস্যদের ভাষ্য অনুযায়ী গোয়ারা গ্রামে তিনটি মসজিদ, একটি পুরুষ মাদ্রাসা, একটি মহিলা মাদ্রাসা, একটি কবরস্থান ও একটি প্রাইমারী স্কুল রয়েছে যার সব কয়টিই নদীর্তী খাল সংলগ্ন স্থানে স্থাপিত। এখানে স্কুলটিতে পার্শবর্তী বেশ কয়েকটি গ্রামের ছাত্রছাত্রীরা পড়াশুনা করেন। এবং মাদ্রাসাটিতে দেশের দুর-দুরান্ত থেকে আশা মাদ্রাসা ছাত্ররা পড়াশুনা করে আসছেন। প্রায় ১শত এর মত ঘরবানী বর্ষা মৌসুমে নদী গর্ভে বিলিন হয়ে গেছে বলেও স্থানীয়দের কাজ থেকে জানাযায়।

এই শিক্ষাগারগুলো যদি রাক্ষসী ভাঙ্গনের স্বিকার হয় তাহলে প্রাণহানীর মতও কোনো ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্খা করছেন ‘গোয়ারা অনাবিল সমাজকল্যাণ সংঘ এর সদস্য সহ স্থানীয় এলাকাবাসীর।

স্থানীয় ভুক্তভোগী জনসাধারনের দাবী, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বাংলাদেশ সরকার যেন এই নদী ভাঙ্গন রোধে বাঁধ নির্মান করে ভাঙ্গন প্রতিরোধকল্প বাস্তবায়ন করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *