ব্রিটেনকে ২০০ সেকেন্ডে, ফিনল্যান্ডকে ১০ সেকেন্ডে গুঁড়িয়ে দেয়া হবে : হুঁশিয়ারি রাশিয়ার

অনলাইন ডেস্ক: সময় লাগবে ২০০ সেকেন্ড। এরই মধ্যে পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় উড়িয়ে দেয়া হবে ব্রিটেনকে। আর ন্যাটোয় যোগ দিলে প্রতিবেশী ফিনল্যান্ডকে ধ্বংস করতে সময় লাগবে মাত্র ১০ সেকেন্ড। শনিবার এমনই হুঁশিয়ারি দিলেন পুতিনের সহযোগী অ্যালেক্সি জুরাভলিয়ভ। এই কাজের জন্য রাশিয়ার অত্যাধুনিক আন্তর্দেশীয় পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র ‘সাটান-২’ বা ‘সারমাত’ ব্যবহার করা হবে।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, ইউক্রেনে সামরিক অভিযানে পুতিনের ব্যর্থতা এবং রাশিয়ার বিরুদ্ধে পাশ্চাত্যের দেশগুলোর ঐক্যে তিতিবিরক্ত হয়েই এমনটা ঘোষণা করেছেন তিনি। এদিন একটি সাক্ষাৎকারে রুশ পার্লামেন্টের প্রতিরক্ষা কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান বলেন, ‘দেশ হিসেবে নিজেদের অস্তিত্বের জন্য আমাদের কাছে ফিনল্যান্ডের কৃতজ্ঞ থাকা উচিত।’

ফিনল্যান্ডের সীমান্তে রুশ পরমাণু সমরাস্ত্র স্থানান্তরিত করার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এমনটা করার কোনো প্রয়োজন নেই। সাইবেরিয়া থেকে হামলা চালালেও সহজেই ব্রিটেনে পৌঁছে যাবে সারমাত। কালিনিনগ্রাদ থেকে মাত্র ২০০ সেকেন্ডে দ্বীপরাষ্ট্রে আঘাত হানতে সক্ষম হবে এই হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র।’

অভিযোগের সুরে জুরাভলিয়ভ বলেন, ফিনল্যান্ডকে ন্যাটোয় যোগদান করতে জোর করছে ব্রিটেন এবং আমেরিকা। তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের আশঙ্কা নিয়েও এদিন উষ্মা প্রকাশ করেন তিনি। বলেন, ‘আমেরিকা তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ ঘটানোর সবরকম প্রয়াস করবে। পরমাণু যুদ্ধ না হলেও সমগ্র ইউরোপকে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যেতে প্ররোচিত করবে তারা। এভাবেই নিজেদের অভ্যন্তরীণ অর্থনৈতিক সমস্যার সমাধানে চাইবে আমেরিকা।’

উল্লেখ্য, গত মাসেই বাল্টিক সাগরে সারমাতের সফল পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করেছিল মস্কো। এরপর থেকেই রাশিয়ার তরফে পরমাণু হামলার আশঙ্কা জোরাল হয়েছে।
সূত্র : বর্তমান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *