মদখেয়ে মোটরসাইকেলে ঘুরতে গিয়ে দুর্ঘটনা, বান্ধবীর মরদেহ রেখে পালালো তিন বন্ধু

তুষার আহাম্মেদ – মুন্সীগঞ্জে মদ্যপ অবস্থায় মধ্যরাতে এক্সপ্রেসওয়েতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা শিকার হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন বৃষ্টি (২৭) নামের এক তরুণী। এসময় তার অপর বান্ধবী আহত হন। তাদের দুজনকে ওই অবস্থায় রাস্তায় রেখে পালিয়ে যান সাথে থাকা তিন ছেলে ব্ন্ধু। এসময় পদ্মা সেতুর মাওয়া টোলপ্লাজার সামনে পুলিশের কাছে আটক হন তিনজনই।

সোমবার (১৮ জুলাই) দিবাগত রাতে এমনই নাটকীয় ঘটনা ঘটেছে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে নামে পরিচিত বঙ্গবন্ধু মহাসড়কের মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে। রাত ২টার দিকে উপজেলার উমপাড়া এলাকায় বেপরোয়া গতিতে চলতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়ক ব্যারিকেডে ধাক্কায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে নিহত হন বৃষ্টি (২৭) নামের এক তরুণী। আহত জান্নাতুল ফেরদৌস (২২), এসএম আহসান রবি (২৯), মোশারফ হোসেন (৩২) ও সুমন (৩২) সবাই মিলে দুই মোটরসাইকেলে ঘুরতে বেরিয়েছিলেন। দুই নারীর বাড়ি রাজধানীর ঢাকার বাড্ডা শাহাজাদপুর এলাকায়।

শ্রীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে আহত জান্নাতুলকে ঢাকায় রেফার্ড করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। এ ঘটনায় আটক রয়েছেন এসএম এহসান রবিন নামে পলায়নের চেষ্টাকারী ওই যুবক। তিনি মতিঝিল এলাকার এস এম শাহজাহানের ছেলে।

হাসাড়া হাইওয়ে থানার এসআই জহিরুল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মধ্যরাতে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় এক্সপ্রেসওয়ে থেকে এক নিহত ও অপর এক আহত নারীকে উদ্ধার করি। এ সময় তাদের সঙ্গে কোনো যানবাহন ছিলো না। আহত নারীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। এরই মধ্যে পদ্মা সেতুর উত্তর থানা পুলিশ টোলপ্লাজা অতিক্রমের চেষ্টাকালে আটক হওয়া তিন যুবককে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসে। এক ব্যক্তির হাতপায়ে কাটা-ছেঁড়া ছিলো। আহত নারী তাকে দেখে চিনে ফেলে।

তিনি আরো জানান, রাজধানী থেকে মোটরসাইকেলে কিছু যুবক বান্ধবীদের নিয়ে মাওয়ার অভিমুখে যাচ্ছিলেন। এরমধ্যে একটি মোটরসাইকেলে ওই দুই নারী ও যুবক আহসান ছিলেন। অন্যান্যরা আগে চলে যায়। পেছনে থাকা আহসানের মোটরসাইকেল দ্রুত গতিতে সড়ক ব্যারিকেডে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত নারীর মরদেহ হাসাড়া হাইওয়ে থানায় রয়েছে। এ ঘটনায় আহসান নামের ওই যুবকের বিরুদ্ধে আইনানুগ মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মাহিয়া জানান, রাত ৩টার দিকে এক দুর্ঘটনায় আহত নারীকে হাসাড়া হাইওয়ে পুলিশ হাসপাতালে নিয়ে আসে। একই সময় পদ্মা সেতু উত্তর থানা পুলিশ ৩ যুবককে হাসপাতালে নিয়ে আসে৷ আহত নারীকে রাজধানীর মিডফোর্ট হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিন যুবকই মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *