মুন্সীগঞ্জ আওয়ামী দুই পক্ষের আধিপত্বকে কেন্দ্র করে সদরে দফায়-দফায় গোলাগুলিতে গুলিবিদ্ধ ১

তুষারআহাম্মেদ – গত সোমবার ১৭ই অক্টোবর দুপুর ১.৩০ হতে বিকাল ৫.৩০ পর্যন্ত মুন্সীগঞ্জ সদরের আধারা ইউনিয়নের বকুলতলা গ্রামে দফায় দফায় আগ্নেআস্রের গুলিবিনিময়ে ২জন গুলিবিদ্ধ হয় বলে জানা যায় । দফায় দফায় গুলিবিনিময়ে রাস্তার পথচারী মনির হোসেন মোল্লা(৬৫) গুলিবিদ্ধ হলে  মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে আনা হলে হাসপাতাল কতৃপক্ষ ঢাঃ মেঃ কঃ হাসপাতালে রেফার করে দেন। ঘটনা সুত্রে জানাযায় বিকাল ৪.৩০টায় আছরের নামাজের উদ্দেশ্যে বকুলতলা গ্রামের মোতালেব মোল্লার পুত্র মনির হোসেন মোল্লা(৬৫) মসজিদে যাওয়ার পথে আওয়ামীলীগের দুই পক্ষের গুলিবিনিময়ের মাঝে কাটুজের গুলিতে গুরুতর আহত অবস্থায় পড়ে থাকলে স্থানীয় মহিলারা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। অপরজন একই গ্রামের আলমাজ গাজীর পুত্র জাকির হোসেন(২৬)  অবরুদ্ধ করে রেখেছে বলে যানাজায়। পুলিশ ঘটনা স্থলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে  আনার চেষ্টা করছে ।
এ বিষয়ে কথা হয় ফিরোজা বেগমের সাথে, তিনি জানান তার আত্নিয় “মনির হোসেন মোল্লা” আওয়ামীলীগের আলী হোসেন সরকার ও সুরুজ মেম্বারের আধিপত্ব কে কেন্দ্র করে মারামারির মাঝখানে গুলিতে  আহত হয়। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয় হাসপাতাল কতৃপক্ষ। জাকির হোসেন নামের আরেক জন গুলিতে আহতকে অবরোদ্ধ করে রেখেছে বলে তিনি জানান।
মুন্সীগঞ্জ পৌরসভা থেকে মোবাইল ফোনে মুক্তিযোদ্ধা সুরুজ মেম্বার জানান, আমি  চরের কিছু স্বাধীনতা-বিরুধি, দুষ্কৃতিকারী চওড়ারা এ ঝগড়াটি লাগিয়েছে। আমি এর সুষ্ঠ বিচার দাবি করছি।
এবিষয় আওয়ামী দুই পক্ষকেই সেল ফোনে যোগাযোগ করার জন্য চেষ্টা করলেও কেউ মোবাইল ফোন রিসিপ করে নাই ।
এ বিষয়ে সদর থানার ওসি তদন্ত আনসারুজ্জামান জানান , আমি ঘটনা স্থলে আছি(৮.২০) এখন পর্যন্ত একজন আহত হওয়ার খবর জানতে পারি। অন্য কেউ অবরোদ্ধ বা আহত থাকলে আমরা বিষয় টি উদ্ধার করার চেষ্টা করবো যদি কেউ আমাদের তথ্যটি দেয়। অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের আধিপত্বের জেরে পথচারী গুলিবিদ্ধ হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *