শ্রীনগ‌রে আদাল‌তের নি‌র্দেশ উ‌পেক্ষা ক‌রে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে জ‌মি ভরাট এর অভিযোগ

মুন্সীগঞ্জ স্টাস:  মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপ‌জেলা ভবনের পিছ‌নে প‌শ্চিম দেউল‌ভোগ মৌজায় অব‌স্থিত বি‌রোধ পূর্ণ জ‌মি‌তে আদাল‌তের নি‌ষেধাজ্ঞা অমান‌্য ক‌রে বালু ভরাট কর‌ছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ফি‌রোজ আল মামুন এবং জেলা য‌ুবলী‌গের সহ-সভাপতি স্বপন রায়। না‌লিশী সম্পদ‌টির মূল মা‌লিক নিরঞ্জন মন্ডল ও নিত‌্যানন্দ মন্ডল বিবাদী সাধু মন্ডল ও সুকুমার মন্ড‌লের বিরু‌দ্ধে বিগত ২০০৬ সা‌লে আর এস ৩৯৩ ও ৩৯৪ নং দা‌গে বিবাদীদ্বয় প্রতারনামূলকভা‌বে নামজারী ক‌রে‌ছেন ম‌র্মে সহকারী ক‌মিশনার (ভূ‌মি ) বরাবর এক‌টি লি‌খিত অ‌ভি‌যোগ দা‌য়ের ক‌রেন। জ‌মির সম্পূর্ণ নিরংকুশ মা‌লিকানা চে‌য়ে গত ৩০/১১/২০০৬ আদালতে ডিক্রী জা‌রির দেওয়ানি মোকাদ্দমা দা‌য়ের ক‌রেন যার নং-৬৬৫/২০০৬। উক্ত দেওয়ানী মামলার আ‌লো‌কে ১২/৮/০৭ তা‌রিখ মাননীয় আদালত ৮ নং আ‌দেশ দ্বারা বিবাদমান সম্পত্তির উপর স্থায়ী স্থিতিশীলতা আ‌রোপ ক‌রেন। আদাল‌তের উক্ত নি‌ষেধাজ্ঞা অবজ্ঞা ক‌রে ১৫ শতক জ‌মি ড্রেজা‌রের বালু দ্বারা ভরাট কর‌ছেন যুবলী‌গের ঐ দুই নেতা। তা‌দের দা‌বি তারা ১৫ শতক ভূ‌মি আর এস রেকর্ড ব‌লে বিবাদী‌ সুকুমার মন্ডল গংদের নিকট থেকে ক্রয় ক‌রে‌ছেন। দেওয়ানী মোকদ্দমা চলমান অবস্থায় যেখা‌নে আদালত নি‌ষেধাজ্ঞা আরোপ ক‌রে‌ছেন সেখা‌নে তা অমান‌্য ক‌রে কিভা‌বে বালু ভরাট হ‌চ্ছে তা নি‌য়ে বি‌স্মিত এলাকাবাসী। এ ব‌্যাপা‌রে জ‌মির মা‌লিক নিতাই মন্ডলের ছেলে সঞ্জয় জানান,আদাল‌তে নি‌ষেধাজ্ঞার বিষয়‌টি কাগজ পত্র সহ সহকারী ক‌মিশনার ভূ‌মি কে অবগত কর‌তে উপ‌স্থিত হ‌লে এখা‌নে প্রকা‌শ্যে আমার হাত পা ভে‌ঙ্গে চুর-মার ক‌রে দি‌বে ব‌লে হুম‌কি দেয়।‌ তি‌নি আরও জনান উ‌ল্লি‌খিত বিষয় নি‌য়ে গত ৪/৮/২২ রোজ শুক্রবার শ্রীনগর থানায় এক‌টি লি‌খিত অ‌ভি‌যোগ দা‌য়ের ক‌রে‌ছেন। আজ‌কের ঘটনায় জীব‌নের নিরাপত্তা চে‌য়ে পুনরায় সাধারণ ডা‌য়েরী কর‌বে বলেন। এব্যাপারে শ্রীনগর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ফি‌রোজ আল মামুন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কোন নিষেধাজ্ঞার জায়গা ভরাট করছি না। নিষেধাজ্ঞার জায়গাটা পাশে। যুবলীগ নেতারা আদালতের নি‌ষেধাজ্ঞার সম্পত্তি দখলের বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ফেরদৌস আলম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যুবলীগের ব্যানার ব্যবহার করে কেউ জমি দখল করতে পারবে না। কেউ এরকম করে থাকলে সেটা আমাদের বরাবর লিখিত অভিযোগ পেলে উপরস্থ নেতাদের সাথে কথা বলে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিব। শ্রীনগর থানা পুলিশের সহকারী উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোঃ মাজহারুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ভরাট কাজ বন্ধ করেছি এবং দুইপক্ষকে কাগজ নিয়ে থানায় আসতে বলেছি। আজ একপক্ষ এসে জানায় ইউএনও মহোদয় তাদেরকে ডেকে তারা ঐখানে যাবে। শ্রীনগর সহকারী ক‌মিশনার (ভূ‌মি ) মোঃ আবু বক্কর সি‌দ্দিক জানান, সংবাদ পে‌য়ে আমরা কাজ বন্ধ ক‌রে দি‌য়ে‌ছি। উভয় পক্ষকে কাগজ পত্র নি‌য়ে আস‌তে বলা হ‌য়ে‌ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হোসেন পাটওয়ারী বলেন, নালিশী সম্পত্তিতে কাজ বন্ধ রয়েছে। উভয়কে কাগজপত্রসহ আসতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *